শিরোনাম:
ঢাকা, সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ন ১৪২৮

Daily Pokkhokal
বৃহস্পতিবার, ২৬ আগস্ট ২০২১
প্রথম পাতা » ব্রেকিং নিউজ | রাজনীতি » ফুলবাড়ী শহীদদের স্মরণে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা, সমাবেশ
প্রথম পাতা » ব্রেকিং নিউজ | রাজনীতি » ফুলবাড়ী শহীদদের স্মরণে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা, সমাবেশ
১০৫ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার, ২৬ আগস্ট ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ফুলবাড়ী শহীদদের স্মরণে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা, সমাবেশ

---
্বিশেষ প্রতিনিহি-
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার শহীদদের স্মরণে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত সমাবেশে বক্তারা। ২৬ আগস্ট ২০২১। ছবি: সংগৃহীত
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার শহীদদের স্মরণে ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানিয়েছে ‘তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি’।
আজ বৃহস্পতিবার সকালে ফুলবাড়ী আন্দোলনে শহীদ তরিকুল, সালেহীন ও আল-আমিনের স্মরণে জাতীয় কমিটি ও কয়েকটি রাজনৈতিক দল-সংগঠনের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দেওয়া হয়।
কমিটির আয়োজিত সমাবেশে জিসিএম’র (সাবেক এশিয়া এনার্জি) বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া ও প্রাণ-প্রকৃতি বিনাশী প্রকল্প বাতিল এবং জ্বালানি দুর্নীতিতে জড়িতদের চিহ্নিত করে বিচারের দাবি জানানো হয়।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় কমিটির সংগঠক রুহিন হোসেন প্রিন্স, কমিটির সংগঠক সাইফুল হক, রাজেকুজ্জামান রতন, কম্রেড বেলাল ,আবদুল্লাহ আল কাফি রতন, নজরুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম, ফকরুদ্দিন কবির আতিক, শহিদুল ইসলাম সবুজ, বাচ্চু ভূঁইয়া, হুমায়ূন কবির, কমিটির ঢাকা মহানগর সংগঠক খান আসাদুজ্জামান মাসুম, মুনীর উদ্দীন পাপ্পু, জুলফিকার আলী ও আকবর খান।
সমাবেশে রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, ‘জিসিএম বাংলাদেশের কয়লা খনি দেখিয়ে লন্ডন শেয়ার বাজারে ব্যবসা করছে। অথচ সরকার তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে না।’

---
জ্বালানি দুর্নীতিতে জড়িতদের চিহ্নিত করে তাদের বিচার দাবি করে তিনি বলেন, ‘প্রাণ-প্রকৃতি ধ্বংস করে কোনো উন্নয়ন প্রকল্প করা যাবে না।’
তিনি অবিলম্বে ফুলবাড়ি ও রামপালসহ প্রকৃতি-পরিবেশ বিনাশী প্রকল্প বাতিল এবং ফুলবাড়ী নেতৃবৃন্দের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।
সমাবেশের আগে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ, বাসদ (মার্ক্সবাদী), বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ, গণতন্ত্রিক বিপ্লবী পার্টি, জাতীয় গণ ফ্রন্ট, গণ সংহতি আন্দোলন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী, ছাত্র ফেডারেশন, গণ সাংস্কৃতিক ফ্রন্ট, গ্রিন ভয়েসসহ কয়েকটি সংগঠন ও ব্যক্তি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ফুলবাড়ীর শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।
সেসময় ফুলবাড়ীর শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
গত ২০০৬ সালের ২৬ আগস্ট দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে জাতীয় সম্পদ রক্ষায় আন্দোলনরত জনতার ওপর পুলিশ ও তৎকালীন বিডিআর গুলি চালায়। এতে তিন জন শহীদ ও শতাধিক আহত হন।
এরপর ৩০ আগস্ট তৎকালীন সরকার আন্দোলনকারীদের দাবি মেনে নিয়ে চুক্তি করে। কিন্তু, ঐ চুক্তি এখনও পূর্ণ বাস্তবায়ন হয়নি।



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)