শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ৬ কার্তিক ১৪২৮

Daily Pokkhokal
বৃহস্পতিবার, ১৯ আগস্ট ২০২১
প্রথম পাতা » » ইসরায়েল থেকে আড়িপাতার যন্ত্র কেনার প্রশ্নই আসে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
প্রথম পাতা » » ইসরায়েল থেকে আড়িপাতার যন্ত্র কেনার প্রশ্নই আসে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
২৩ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার, ১৯ আগস্ট ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ইসরায়েল থেকে আড়িপাতার যন্ত্র কেনার প্রশ্নই আসে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পক্ষকাল ডেস্ক----
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ইসরায়েল থেকে বাংলাদেশ আড়িপাতা যন্ত্র কখনও আমদানি করেনি এবং ভবিষ্যতেও করবে না।
ইসরায়েল থেকে আড়িপাতার যন্ত্র কেনার প্রশ্নই আসে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয়ে শেরেবাংলা নগর থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে অসহায়দের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, ইসরায়েল আড়িপাতার যন্ত্র বিক্রির জন্য বিশ্বজুড়ে মার্কেটিং করে। বাংলাদেশের সঙ্গে কখনোই ইসরায়েলের বাণিজ্যিক চুক্তি ছিল না এবং এখনও নেই। ফলে আড়িপাতার যন্ত্র কেনার প্রশ্নই আসে না।
বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ব্যাপারে ইসরায়েলের বক্তব্যের প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ কখনোই মানবাধিকার লঙ্ঘন করেনি। বাংলাদেশ মানবাধিকার সংস্থার সদস্য। এ কারণে মানবাধিকার সমুন্নত রাখতে সরকার বিভিন্ন দেশের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
এদিকে, বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুনিবুর রহমানের সরকারি বাসভবনে হামলার ঘটনায় দোষী ও প্ররোচনাকারীদের শাস্তি হবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।
তিনি বলেন, ‘বিষয়টি এখন তদন্তাধীন। তদন্তের মাধ্যমে বেরিয়ে আসবে কার ভূমিকা কী ছিল। কেউ যদি ভুল-ভ্রান্তি করে থাকেন, তাহলে তদন্ত শেষে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরকারি বাসভবনে হামলার ঘটনায় দোষী ও প্ররোচনাকারীদের শাস্তি হবে।’
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যখনই কোনো অস্বাভাবিক পরিস্থিতি তৈরি হয়, তখনই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দায়িত্ব পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা। বরিশালের ঘটনা যে পর্যায়ে গিয়েছিল, এতে করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেছে। বর্তমানে বরিশাল শহরে উত্তেজনাপূর্ণ অবস্থা নেই। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে, ঘটনায় কারও প্ররোচনা ছিল কি-না, তা মামলার তদন্ত শেষে বলা যাবে।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)