শিরোনাম:
ঢাকা, বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯

Daily Pokkhokal
সোমবার, ২ আগস্ট ২০২১
প্রথম পাতা » স্বাস্থ্য ও আইন » টিকা না নেওয়াদের মৃত্যুহার ৩ শতাংশ, নেওয়াদের ০.৩ শতাংশ: আইইডিসিআর
প্রথম পাতা » স্বাস্থ্য ও আইন » টিকা না নেওয়াদের মৃত্যুহার ৩ শতাংশ, নেওয়াদের ০.৩ শতাংশ: আইইডিসিআর
৫৮ বার পঠিত
সোমবার, ২ আগস্ট ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

টিকা না নেওয়াদের মৃত্যুহার ৩ শতাংশ, নেওয়াদের ০.৩ শতাংশ: আইইডিসিআর

---
সোমবার, পক্ষকাল ডেস্ক-
পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া করোনা রোগীদের হাসপাতালে ভর্তির হার সাত শতাংশ এবং টিকা না নেওয়া রোগীদের হাসপাতালে ভর্তির হার ২৩ শতাংশ।
সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) এক গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে।
গবেষণা তথ্যে আরও বলা হয়েছে, অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেওয়া করোনা রোগীদের হাসপাতালে ভর্তির হার ৩২ শতাংশ এবং পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া রোগীদের ভর্তির হার ১০ শতাংশ।
গবেষণায় দেখা যায়, একের অধিক অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেওয়া করোনা রোগীদের হাসপাতালে ভর্তির হার পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণকারীদের তুলনায় ১৬ শতাংশ বেশি।
গত মে ও জুন মাসে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জাতীয় তালিকা থেকে দ্বৈবচয়নের ভিত্তিতে নির্বাচিত ত্রিশোর্ধ্ব এক হাজার ৩৩৪ জনের ওপর এই গবেষণা পরিচালিত হয়।
এতে দেখা গেছে, টিকা না নেওয়া রোগীদের মধ্যে শ্বাসকষ্ট জনিত জটিলতার হার ছিল ১১ শতাংশ। অন্যদিকে পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে এই হার চার শতাংশ।
অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেওয়া করোনা রোগীদের মধ্যে শ্বাসকষ্ট জনিত জটিলতার হার পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্তদের তুলনায় ১০ শতাংশ বেশি।
গবেষণায় অংশগ্রহণকারী টিকা না নেওয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে তিন শতাংশের আইসিইউতে ভর্তির প্রয়োজন হয়েছে। অন্যদিকে পূর্ণ ডোজ টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে এক শতাংশের কম রোগীকে আইসিইউতে ভর্তি করতে হয়েছে।
টিকা না নেওয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে তিন শতাংশ মারা গেছেন এবং টিকা গ্রহণ পরবর্তী আক্রান্তদের মধ্যে শূন্য দশমিক তিন শতাংশ রোগী মারা গেছেন।
গবেষণায় টিকার একটি ডোজও গ্রহণ করেননি এমন ৫৯২ জন আক্রান্ত রোগী এবং পূর্ণ ডোজ টিকা নিয়েছেন এমন ৩০৬ জন রোগী অংশগ্রহণ করেন। যারা টিকা গ্রহণ করার অন্তত ১৪ দিন পর নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তারা গবেষণায় অংশগ্রহণ করেন। আক্রান্ত রোগীদের শনাক্ত হওয়ার অন্তত ১৪ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হয়।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)