শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯

Daily Pokkhokal
বৃহস্পতিবার, ৯ জানুয়ারী ২০২০
প্রথম পাতা » খেলাধুলা | ব্রেকিং নিউজ » সহজ জয়ে ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ
প্রথম পাতা » খেলাধুলা | ব্রেকিং নিউজ » সহজ জয়ে ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ
১৪০ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার, ৯ জানুয়ারী ২০২০
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

সহজ জয়ে ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ

  ---

পক্ষকাল সংবাদ-

গত মৌসুমে লা লিগায় তৃতীয় হয়ে শেষ করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। কোপা ডেল রে’র ফাইনালও খেলা হয়নি লস ব্লাঙ্কোসদের। তবে বার্সেলোনার বদান্যতায় সুপার কাপ খেলার সুযোগ পায় দলটি। বার্সেলোনা লা লিগার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি কোপা ডেল রে’তে রানার্স আপ হয়। এবার নতুন ফরম্যাটে সুপার কাপ হওয়াতে চতুর্থ দল হিসেবে টুর্নামেন্টটি খেলে রিয়াল মাদ্রিদ।

তবে সবার আগে সুপার কাপের ফাইনাল নিশ্চিত করে রিয়াল মাদ্রিদ। বুধবার রাতে সৌদির কিং আবদুল্লাহ স্টেডিয়ামে কোপা ডেল রে’র ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের সহজে হারায় দলটি। ম্যাচের প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকা রিয়াল ৩-১ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে। ম্যাচে রিয়াল আধিপত্য বিস্তার করে খেলে। ৬২ শতাংশ বল দখলে রাখা রিয়াল প্রতিপক্ষের গোলমুখে ১৭টি শট নেয়। অপরদিকে ভ্যালেন্সিয়া মাত্র ৮টি শট নিতে পারে।

সুপার কাপের সেমিফাইনালে গ্যারেথ বেল, করিম বেনজেমা ও এডেন হ্যাজার্ডের মতো ফ্রন্টলাইন স্ট্রাইকার ছাড়া খেলতে নামে রিয়াল মাদ্রিদ। তবে তাদের অভাব বুঝতে দেননি দলের মিডফিল্ডাররা। মূল স্ট্রাইকার হিসেবে মাঠে নামেন লুকা জোভিচ।

ম্যাচের ১৫তম মিনিটে কর্ণার কিক থেকে গোল করে লস ব্লাঙ্কোসদের এগিয়ে দেন জার্মান তারকা টনি ক্রুস। ম্যাচের ৩৯তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন স্প্যানিশ তারকা ইসকো। দারুণ এক ভলিতে বল জালে জড়ায় এই মিডফিল্ডার। এ নিয়ে রিয়ালের জার্সিতে ৪৯ গোল হলো ইসকোর। আর এক গোল করলে রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদানকে ছাড়িয়ে যাবেন স্পেনের এই তারকা।

বিরতির পরপর ব্যবধান ৩-০ হতে পারতো। কিন্তু ইসকোর হেড ক্রসবারে লেগে ফিরে যায়। ম্যাচের ৬৫তম মিনিটে লস ব্লাঙ্কোসদের ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন ক্রোয়েট মিডফিল্ডার লুকা মদ্রিচ। ম্যাচের যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে সান্তনার এক গোল পরিশোধ করে ভ্যালেন্সিয়া। সার্জিও রামোসের ভুলে পেনাল্টি পায় ভ্যালেন্সিয়া। দলটির পক্ষে গোল করেন ড্যানিয়েল পারেজো। এ ম্যাচে মোট ৭৯৮টি পাস দেয় রিয়াল মাদ্রিদ। যা চলতি মৌসুমে দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ।

ম্যাচ শেষে রিয়াল মাদ্রিদের কোচ জিনেদিন জিদান বলেন, ‘আমি চাইলে আরো দুইজন বাড়তি উইঙ্গার খেলাতে পারতাম। কিন্তু আমি ইসকো আর মদ্রিচের উপর ভরসা রেখেছি। আমরা শুরু থেকে প্রতিপক্ষকে গুড়িয়ে দিতে চেয়েছিলাম। আর ছেলেরা খুব ভালো খেলেছে।’



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)